বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হয়েও হাসানুজ্জামান সরকার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুল মতিন ভূঁইয়ার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন। এতে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোনায়েমের নির্দেশে তাঁর পদ স্থগিত করা হলো। পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত হাসানুজ্জামানের জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকটি পদটি স্থগিত থাকবে।

নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগ ও যুবদলের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, গত ১২ অক্টোবর আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুল মতিন ভূঁইয়ার ফেসবুকে দেওয়া নির্বাচনী প্রচারণার ছবিতে হাসানুজ্জামান সরকারকেও দেখা যায়। এটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে যুবদলসহ স্থানীয় বিএনপির নেতা-কর্মীরা সমালোচনা শুরু করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে হাসানুজ্জামানের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বলার জন্য হাসানুজ্জামান সরকারের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি। জেলা যুবদলের সভাপতি মহসিন হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, আপাতত কেন্দ্রীয় নির্দেশে হাসানুজ্জামান সরকারের দলীয় পদ স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত শেষ হওয়ার পর কেন্দ্র থেকে তাঁর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।