পুলিশ জানায়, আজ বিকেলে তোফায়েল নিজের জমির আল কাটতে যান। এ সময় একই গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে আমিনুল ইসলাম ও আলমগীরের সঙ্গে জমির সীমানা নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আমিনুল ইসলাম ও আলমগীর ক্ষিপ্ত হয়ে তোফায়েলের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। এরপর আমিনুল ও আলমগীর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি অভিযুক্ত আমিনুল ও আলমগীরের বাড়িতে হামলা করতে যান। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদার রহমান প্রথম আলোকে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সন্ধ্যা ছয়টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।