উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের জাদিমোরা জেলেপাড়ার বাসিন্দা হামিদ উল্লাহর জালে মাছগুলো ধরা পড়ে। তিনি বলেন, আজ রোববার বিকেলে ছোট একটি নৌকা নিয়ে জাদিমোরা এলাকার নাফ নদীতে জাল ফেলেছিলেন। একই সময় বড়শি দিয়ে মাছ ধরার চেষ্টা করেন। বড়শিতে বিভিন্ন প্রজাতির কয়েকটি মাছ ধরা পড়ে। এর মধ্যে সন্ধ্যায় জাল টেনে তুলতেই দেখতে পান ছয়টি বড় ইলিশ। মাছগুলো দেখে খুবই খুশি লেগেছে। পরে মাছগুলো বিক্রির জন্য বাজারে চলে আসেন।

মাছ ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম বলেন, রোববার রাত সাড়ে সাতটার দিকে মাছগুলো বাজারে নিয়ে আসেন হামিদ উল্লাহ। ওজন দিয়ে দেখা যায়, মাছগুলোর প্রতিটির ওজন দুই কেজি করে। এরপর তাঁর কাছ থেকে ১৭ হাজার টাকায় মাছগুলো কিনে রাখেন বাজারের খুচরা মাছ ব্যবসায়ী নবী হোসেন।

নবী হোসেন বলেন, নাফ নদীর ইলিশের কদর আছে। এ নদীর ইলিশ সুস্বাদু। এ কারণেই দাম এমনিতেই একটু বেশি। তিনি ছয়টি ইলিশ ১৭ হাজার টাকায় কিনেছেন। এখন ২০ হাজার টাকা পেলেই মাছগুলো বিক্রি করে দেবেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, বিভিন্ন সময় মাছ ধরার ওপর সরকার নিষেধাজ্ঞা জারি করে। বর্তমানে জেলেরা এ তাৎপর্য বুঝতে পেরেছেন। তাই নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন মাছ ধরা থেকে বিরত থেকেছেন। এ সুযোগে নদীর মাছগুলো বড় হতে পেরেছে।