‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ের উন্নয়ন’ প্রতিপাদ্যে জেলা সমবায় অধিদপ্তরের উদ্যোগে শহরে এ শোভাযাত্রা বের করা হয়। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির হাছন রাজা মিলনায়তনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এম এ মান্নান বলেন, ‘রোহিঙ্গারা বিপদে পড়ে আমাদের দেশে চলে এসেছে। আমরা তাদের জায়গা দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “দেশের ১৬ কোটি মানুষ যখন খেতে পারছে, আরও হয়তো কয়েক লাখ খাবে। আমরা চাই জাতিসংঘসহ বিশ্বের সব দেশ দেখুক রোহিঙ্গারা কী অবস্থায় আছেন।” আমরা বিশ্বাস করি, মিয়ানমার যারা পরিচালনা করে, তারা ন্যায়ের পথ দেখবে, সমঝোতার পথে আসবে এবং রোহিঙ্গারা তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে পারবে।’

বিএনপিকে ইঙ্গিত করে এম এ মান্নান বলেন, আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে কোনো লাভ হবে না। আওয়ামী লীগের সঙ্গে বাংলাদেশের জনগণ আছে। তারা দেখছে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থেকে কী করছে। তারাই বিচারক। শুধু তাই নয়, দেশের মানুষ দেখছে, আওয়ামী লীগের উন্নয়ন। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন—সবকিছু এ সরকার করছে। সুতরাং কে ক্ষমতায় থাকবে, সেই রায় দেশের জনগণ দেবে।

এ সময় সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হুদা, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত উপস্থিত ছিলেন।