বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চিকিৎসক শঙ্কর প্রসাদ বিশ্বাস ও মানসুরা ইয়াসমিনের তত্ত্বাবধানে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ওই তিন সন্তানের জন্ম দেন কেয়া খাতুন। নবজাতকেরা ও প্রসূতি সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগের জ্যেষ্ঠ স্টাফ নার্স জেসমিন খাতুন।
জাকির হোসেন বলেন, পদ্মা সেতুর সঙ্গে মিলিয়ে দুই মেয়ের নাম রেখেছেন পদ্মা ও সেতু। এই সেতু বাংলাদেশের একটা বড় বিজয়, সে জন্য ছেলেটির নাম রেখেছেন জয়। স্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করে এই নাম রেখেছেন বলে জানান তিনি।

এই দম্পতির মিনহাজ খান নামের চার বছরের এক ছেলেও আছে। জাকির বলেন, একসঙ্গে তিন সন্তান পেয়ে তিনি প্রচণ্ড খুশি। তবে সামান্য আয়ে ভবিষ্যতে কীভাবে চার সন্তানকে লালন-পালন করবেন, তা নিয়ে চিন্তা হচ্ছে।