আলতাফ হোসেন অভিযোগ করেন, ‘কেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে জাবেদের ভাই জসিম, সজিবসহ তাঁদের লোকজন আমার ওপর হামলা করেন। আমার নাক-মুখ ফাটিয়ে দিয়েছেন। অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেছেন। আমার ফোনও নিয়ে গেছেন তাঁরা। প্রশাসনকে বললেও তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।’

তবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সালাউদ্দিন চৌধুরী জাবেদ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে আলতাফ ভুয়া অভিযোগ করছেন। তাঁর ওপর কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি।

আলতাফ হোসেনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসক জয়নাল আবেদিন প্রথম আলোকে বলেন, আলতাফের শরীরে কিল-ঘুষি ও জখমের চিহ্ন আছে। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসেন বলেন, হামলার বিষয়টি তিনি শুনেছেন। চিকিৎসকদের কাছ থেকে তাঁর খবর নিয়েছেন। তবে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার মতো আহত হননি বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে তাঁরা সতর্ক অবস্থানে আছেন।

দিঘলী ইউপির উপনির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ইভিএমে ভোট গ্রহণ চলছে। এ ছাড়া রামগতি উপজেলার বড়খেরি ও চর আবদুল্লাহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। বড়খেরিতে দুজন ও চর আবদুল্লাহতে দুজন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই দুই ইউনিয়নে ৭৮ জন সদস্য প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন