প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা হলেন প্রদ্যোত দাস, শফিকুল কবির, সুরভী সোবহানা, আশরাফুল কবির, মেহেদী হাসান, সিগমা হক, ফণী দাস, সাদেক মুকুল, অরুণ চন্দ্র বর্মণ, জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, শরীফ বাচ্চু, নাইমুজ্জামান ভূঁইয়া, সৈয়দা হুমাইরা রশীদ, নাঈম মৃধা, আলম, মহসীন কবির, মোর্শেদা হক, রোকসানা আক্তার, হেলেনা নাজনীন, মীর বাছিরুন নেছা, সুশান্ত কুমার সাহা, শামীম আকতার, প্রাণতোষ দত্ত, অলি মাহমুদ, আরিফ বাচ্চু, মোহাম্মদ রবিন, আর্জিনা আহসান, জয়ন্ত দেবনাথ, শাশ্বতী দেব, আবু আল নঈম, হুমাইরা রশীদ ও আসিফ খান।

প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া শিল্পীরা সবাই নরসিংদীর সন্তান।
default-image

প্রদর্শনী উপভোগ করতে এসেছিলেন নরসিংদী সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী সায়মা বিথি। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের আয়োজন নরসিংদীতে খুব একটা হয় না। গুণী শিল্পীদের আঁকা এসব ছবি ঘুরে দেখে আনন্দ পেয়েছি। কিছু ছবি বুঝতে পারিনি, কিছু বুঝেছি। প্রদর্শনীটি সব মিলিয়ে ভালো লেগেছে।’

অধ্যাপক রোকেয়া সুলতানা তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘চিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে আমাদের ভেতরে মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের বোধ জাগ্রত হয়। তাই এমন আয়োজনকে আমি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করি। এই আয়োজনের মাধ্যমে নরসিংদীর ৩২ জন চিত্রশিল্পীর একত্র হওয়াটাও একটা বড় প্রাপ্তি।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে গোলাম মোস্তাফা মিয়া বলেন, প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া শিল্পীরা সবাই নরসিংদীর সন্তান। এই ধরনের প্রদর্শনীর আয়োজন খুবই দরকার। এর মাধ্যমে সামাজিক-সাংস্কৃতিক চর্চার প্রকাশ ও বিকাশ সম্ভব হবে।

নরসিংদী চারুশিল্পী পর্ষদ জানায়, ১২ আগস্ট পর্যন্ত নরসিংদী পৌরসভা মিলনায়তনে প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শকের জন্য এ চিত্র প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন