নিহত শিমুলের স্বজনেরা জানিয়েছেন, শিমুল একসময় ব্যবসা করতেন। ৮ থেকে ১০ বছর আগে তাঁর ব্যবসায় ধস নামলে তিনি ঋণগ্রস্ত হতে শুরু করেন। একপর্যায়ে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন। সাধারণত তাঁকে বাড়ি থেকে বের হতে দেওয়া হতো না। গতকাল সাপ্তাহিক প্রার্থনায় অংশ নিতে সকাল সাড়ে আটটার দিকে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। প্রার্থনা শেষে রেললাইন ধরে হাঁটার সময় দিনের কোনো এক সময় ট্রেনের ধাক্কায় তিনি মারা যান। খবর পেয়ে সন্ধ্যার পর নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির (ইনচার্জ) উপপরিদর্শক ইমায়েদুল জাহেদী বলেন, নিহত ব্যক্তির স্বজনদের কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ তাঁদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন