শারমিনের চাচা আবদুল মালেক ফকির বলেন, শারমিনের মা দীর্ঘদিন ধরে লিভার ও কিডনি রোগে আক্রান্ত ছিলেন। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সোয়া দুইটার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আজ সকাল নয়টার দিকে মরদেহ বাড়িতে পৌঁছায়। পরে মায়ের মরদেহ বাড়িতে রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিতে যান শারমিন। পরীক্ষা শেষে শারমিন বাড়ি ফেরার পর তাঁর মায়ের মরদেহ দাফন করা হয়।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম বলেন, শারমিনের খোঁজখবর নেওয়া হয়েছে। সহপাঠী ও পরীক্ষাকেন্দ্রের সচিবের সহযোগিতায় তিনি পরীক্ষা দিয়েছেন।