পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ভারতীয় গরু ব্যবসায়ীদের সহায়তায় কয়েকজন বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী লোহাকুচি সীমান্তের ৯২১/এস ৬ নম্বর পিলার এলাকায় গরু পারাপার করতে যান। এ সময় বিএসএফ ৭৫ ব্যাটালিয়নের কৈমারী বত্তর ক্যাম্পের সদস্যরা গুলি ছুঁড়লে ঘটনাস্থলে আয়নাল ও ওয়াসকুরুনী মারা যান। পরে তাঁদের সঙ্গীরা নিহত দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী বলেন, ভোররাতে সীমান্তের দিকে বাংলাদেশি কয়েকজন ব্যবসায়ী গরু পারাপার করতে গেলে তাঁদের লক্ষ্য করে বিএসএফ গুলি চালায়। এ সময় বিএসএফের গুলিতে ওই দুই যুবক মারা যান।

আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোক্তারুল ইসলাম বলেন, গুলিবিদ্ধ দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক তৌহিদুল আলম মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোগলহাট বিওপি ক্যাম্পের বিজিবি কমান্ডার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ভারতের ৭৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের আওতাধীন কৈমারী বিএসএফ ক্যাম্প কমান্ডারকে পতাকা বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত বিপরীত দিক থেকে সাড়া মেলেনি।