পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল ১০টার দিকে নাহিদ বাড়ি থেকে বের হয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে মথুরাপুরের উদ্দেশে রওনা হন। পথে চানদিয়াড় বাজার এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে নাহিদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে নাহিদ ও অন্য মোটরসাইকেলের চালক মথুপুর এলাকার এনামুল হক (৩৫) গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। সেখানে তাঁদের অবস্থার অবনতি হলে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা দেড়টার দিকে নাহিদ হাসান মারা যান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাত্র ২ মাস আগে নাহিদ হাসান বিয়ে করেন। ৫ দিন আগে নাহিদ শ্বশুরবাড়ি থেকে মোটরসাইকেলটি ‘উপহার’ পেয়েছিলেন। আজ সকালে ওই মোটরসাইকেল চালিয়ে মথুরাপুর যাচ্ছিলেন।

ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাহমুদুল হাসান বলেন, দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ সময় তাঁদের অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়ায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, নিহত নাহিদ হাসানের লাশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাঁর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন