একপর্যায়ে সাড়ে চারটার দিকে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতা–কর্মীদের সড়কের ওপর থেকে সরিয়ে দেয়। এতে বিএনপির পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়।

পুলিশি বাধার সময় ঘটনাস্থলে সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সদস্যসচিব আবদুল আলিম, যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, পৌর বিএনপির আহ্বায়ক শের আলী, সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল ইসলামসহ জেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযোগের বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জহুরুল হক বলেন, আগামী ২৪ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যশোর সফর উপলক্ষে যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের নেতৃত্বে আজ শুভেচ্ছা মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল। তবে বিএনপির কর্মসূচিতে কোনো বাধা দেওয়া হয়নি বলে তিনি দাবি করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) তারেক বিন আবদুল আজিজ বলেন, একই স্থানে দুই দলের লোকজনের উপস্থিতির খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। সেখানে যেন কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা না ঘটে, সে জন্য দুই দলকে সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।