চারঘাট পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত এই সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা। প্রধান বক্তা ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াদুদ।

সঞ্চালক ছিলেন চারঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফকরুল ইসলাম। সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য আদিবা আঞ্জুম, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জাকিরুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক আলফোর রহমান।

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এরপর সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় অধিবেশনে সর্বসম্মতিক্রমে বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনকে পুনরায় সভাপতি এবং চারঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলামকে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। এ ছাড়া সহসভাপতি হিসেবে মোক্তার হোসেন এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে কাজী মাহমুদুল হাসানের নাম ঘোষণা করা হয়। নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন