পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে বাড়িতে এসেছিলেন লিটন। এ সময় তার বাবা স্ট্রোক করে মারা যান। লিটন গতকাল শনিবার রাতে বাড়ি থেকে রাজধানীতে যাওয়ার উদ্দেশে বের হন। রাত পৌনে একটার দিকে উপজেলার বালুঘাটা বাজারের কাউন্টার থেকে ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস নালিতাবাড়ী পৌর শহরের দিকে আসছিল। নয়াপাড়া পাগলার মোড় এলাকায় পৌঁছালে রাস্তা পার হতে যাওয়া লিটনকে চাপা দিয়ে বাসটি দ্রুত চলে যায়। এতে মাথা থেঁতলে গিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান লিটন। রাতেই পুলিশ নিহত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। রাত দেড়টার দিকে শহরের নয়ানিকান্দা এলাকা থেকে বাসচালককে আটক করে পুলিশ। বাসটিও জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

কলসপাড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ বলেন, বাবার মৃত্যুর এক সপ্তাহ পর লিটন সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলেন। এসএসসি পাস করে সংসারের হাল ধরতেই ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন লিটন।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বলেন, এ ব্যাপারে থানায় মামলা করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় রাতেই বাসচালক বাদশা মিয়াকে (৪৫) আটক করেছে পুলিশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন