জেলে জুলহাস সরদার বলেন, তাঁদের বাড়ি গোয়ালন্দ উপজেলার যদু ফকিরপাড়ায়। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে স্থানীয় নিমাই ও মনা হালদারকে নিয়ে নদীতে নামেন তিনি। আজ সকাল সাতটার দিকে জাল নৌকায় তুলতেই বুঝতে পারেন, জালে বড় মাছ আটকা পড়েছে। জাল নৌকায় তুলে দেখতে পান, বড় একটি বাগাড় মাছ। পরে বিক্রির জন্য সেটি ৬ নম্বর ফেরিঘাটে আনেন। ওজন দিয়ে দেখা যায়, বাগাড় মাছটির ওজন সাড়ে ১৫ কেজি। পরে নিলামে তোলা হলে ফেরিঘাটের মৎস্য ব্যবসায়ী নুরু শেখ সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ১ হাজার ৫০ টাকা কেজি দরে ১৬ হাজার ২৭৫ টাকায় মাছটি কেনেন।

পাঙাশ মাছ ধরা পড়েছে পাবনার ঢালারচর এলাকার জেলে হজরত প্রামাণিকের জালে। তিনি বলেন, গতকাল সিরাজ শেখ, জুয়েল রানা, আবদুর রহিমসহ তিনি নদীতে মাছ শিকারে বের হন। গোয়ালন্দের দেবগ্রাম অঞ্চলের পদ্মা নদীতে তাঁরা জাল ফেলেন। রাত আটটার দিকে পদ্মা-যমুনা নদীর মোহনায় জাল ফেলে নৌকায় তোলার পর দেখতে পান, একটি বড় পাঙাশ আটকা পড়েছে। আজ সকালে বিক্রির জন্য মাছটি দৌলতদিয়া ঘাটে নেন।

দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী নুরু শেখ বলেন, সকালে ফেরিঘাট থেকে উন্মুক্ত নিলামে সাড়ে ১৫ কেজির একটি বাগাড় ১৬ হাজার ২৭৫ টাকায় এবং প্রায় ১৫ কেজি ওজনের একটি পাঙাশ সাড়ে ১৫ হাজার টাকায় কিনেছেন। মাছ দুটি আড়তঘরে রাখা হয়েছে। প্রতি কেজি ১০০ টাকা লাভ পেলেই মাছ দুটি বিক্রি করে দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন