নিখোঁজ দুই মাদ্রাসাছাত্র হচ্ছে নরসিংদীর পলাশ উপজেলার দড়িহাওলাপাড়া গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে গালিব হক (১৫) ও রায়পুরা উপজেলার বড়ইতলা গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে শহীদুল ইসলাম (১৭)। তারা নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদিয়া এলাকার মোহাম্মদীয়া ইন্টারন্যাশনাল হিফজুল কোরআন মাদ্রাসার ছাত্র।

নৌ পুলিশ ও নিখোঁজ মাদ্রাসাছাত্রদের সহপাঠীরা জানান, মাদ্রাসাটির দুই শিক্ষকের নেতৃত্বে সকালে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকায় ৩২ জন ছাত্র বনভোজন করতে আফজাল সাহেবের চরে আসে। সারা দিন আনন্দ করার পর বিকেলে অন্তত ১০ জন ছাত্র শিক্ষকদের না জানিয়ে নদীতে গোসল করতে নামে। গোসল শেষ করার পর আটজন নদী থেকে উঠে আসে। কিন্তু গালিব ও শহীদুল উঠে আসছিল না। প্রায় ৩০ মিনিট অপেক্ষার পর তাদের খোঁজ না পেয়ে শিক্ষকেরা মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান।

মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ খবর জানতে পারেন করিমপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক ফরিদুল আলম। পরে নৌ পুলিশ সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। খবর পেয়ে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের একটি দল। রাতে উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়।

জানতে চাইলে করিমপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক ফরিদুল আলম বলেন, নিখোঁজ দুই মাদ্রাসাছাত্রকে উদ্ধারের অভিযান আমরা চালিয়ে যাচ্ছি। সাড়ে ৭টা পর্যন্ত তাদের উদ্ধার করা যায়নি। বাকি ৩০ শিক্ষার্থীকে নিয়ে ওই দুই শিক্ষক মাদ্রাসায় ফিরছেন।