আদালতের সরকারি কৌঁসুলি আবদুর রহমান বলেন, সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার নাইমুড়ী গ্রামের শাহ আলমের সঙ্গে নজিরন বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই নজিরনের সঙ্গে তাঁর শাশুড়ি আমেনা বেগমের বনিবনা হচ্ছিল না। বিভিন্ন সময় নজিরনের সঙ্গে ঝগড়া লাগত আমেনার। ২০০৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর নজিরনের সঙ্গে আমেনার ঝগড়া লাগে। ওই দিন সন্ধ্যায় আমেনার স্বামী পাশের বাজারে গেলে আমেনাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন নজিরন।

এ ঘটনায় আমেনার স্বামী সাখাওয়াত হোসেন বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ ও শুনানি শেষে আদালত নজিরন বেগমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।