স্থানীয় ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজ সকালে তোফায়েল আহম্মেদ নামের স্থানীয় এক কৃষক জমিতে কাজ করতে যান। এ সময় তিনি আমেনার লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার করেন। পরে আশপাশের লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা আমেনার লাশ শনাক্ত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত গৃহবধূর পরিবার ও স্থানীয় ব্যক্তিদের দাবি, আমেনাকে পরিকল্পিতভাবে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। পরে তাঁর লাশ বাড়ির পাশের জমিতে ফেলে রাখা হয়। তাঁর হাত-পা, পিঠসহ শরীরের কিছু অংশে আগুনে পুড়ে গেছে।

লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল বলেন, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাঁর শরীরের বিভিন্ন অংশ দগ্ধ অবস্থায় দেখা গেছে। এ ঘটনায় তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন