মুবিন উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাটাখালীর বাসিন্দা আবদুর রহিমের ছেলে। হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জালাল আহমদ তাঁর পরিচয় শনাক্ত করেছেন।

ভোররাতে র‍্যাব একজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পেট ও বুকে চারটি গুলির চিহ্ন রয়েছে।
নওশেদ কানন, জরুরি বিভাগের চিকিৎসক, টেকনাফ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

খায়রুল ইসলাম সরকার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাবের একটি দল জানতে পারে, মাদকের একটি বড় চালান টেকনাফের দমদমিয়া এলাকায় হাত বদল হতে পারে। সেই সূত্র ধরে র‍্যাবের দলটি ওই এলাকায় কড়া নজরদারি রাখে। এ সময় পাঁচজন মাদক কারবারি র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে র‍্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। আত্মরক্ষার্থে র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালালে কয়েকজন পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যান এবং ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে পাওয়া যায়। এ সময় তাঁর হাতে থাকা একটি বিদেশি পিস্তল (লোডেড), চারটি গুলি ও এক বস্তা (২ লাখ ২০ হাজার পিস) ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে গুলিবিদ্ধ যুবককে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।

উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নওশেদ কানন বলেন, ভোররাতে র‍্যাব একজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পেট ও বুকে চারটি গুলির চিহ্ন রয়েছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান বলেন, র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত যুবকের লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন