মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৬ এপ্রিল দিবাগত রাত ১২টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের মানিকপুর এলাকায় যানবাহন তল্লাশি করছিলেন। এ সময় একটি পিকআপ তল্লাশি করে মোট ৬০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে পিকআপের মালিক মাইনুল ইসলামের হাতে থাকা একটি ব্যাগের ভেতর থেকে ৩০০ গ্রাম ও সিটের নিচে থাকা ৩০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মাইনুল ইসলামের বড়াইগ্রাম থানায় মামলা হলে তদন্ত শেষে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়। মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আজ রায় ঘোষণা করা হলো।

সরকার পক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, মামলার সাক্ষ্যপ্রমাণে মালিকের বিরুদ্ধে মাদক বহনের সুস্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই এ রায়ে তিনি সন্তুষ্ট। রায় ঘোষণার পর আসামিকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আজিম উদ্দিন বলেন, তাঁরা এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।