এ বিষয়ে কথা বলতে বালাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রমাপ্রসাদ চক্রবর্তীর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি। সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে থানার কর্তব্যরত কর্মকর্তা মো. আবদুল আহাদ প্রথম আলোর কাছে দাবি করেন, বিএনপির মিছিলে কোনো বাধা দেওয়া হয়নি। তারা নির্বিঘ্নে তাদের কর্মসূচি পালন করেছে।

বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী। উপজেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম রব্বানীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় সমাবেশে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, বিএনপি নেতা হাসান আহমদ পাটওয়ারী, সাহাব উদ্দিন, মামুনুর রশীদ, তাজরুল ইসলাম, মাহবুবুল হক চৌধুরী, কোহিনুর আহমদ, ইকবাল আহমদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

default-image

আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, বিএনপি দেশের গণতন্ত্র, বাক্‌স্বাধীনতা, ভোটাধিকার ও জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন করছে। বিএনপির সভা-সমাবেশে জনস্রোত দেখে আওয়ামী লীগ সরকার আতঙ্কে আছে। তাই তারা এখন বিএনপির সভা-সমাবেশে হামলা করছে, বাধা দিচ্ছে। পুলিশও সরকারের পক্ষ হয়ে হামলায় অংশ নিচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন