বিকেলে দ্বিতীয় অধিবেশনে শান্তিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির সভাপতি হিসেবে শিতাংশু শেখর ধর এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মোহাম্মদ হাসনাত হোসনের নাম ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া ঘোষণা হওয়া আরও চারটি পদের মধ্যে জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি হিসেবে বোরহান উদ্দিন দোলন, সহসভাপতি গোলাম হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুক মিয়া ও মাসুদ মিয়া আছেন। কমিটির এই ছয় পদের নাম ঘোষণার বিষয়টি সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী।

নুরুল ইসলাম নাহিদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অনেক এগিয়েছে। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীরা নতুন বই পাচ্ছে। নিজেদের অর্থায়নে পদ্মা সেতু হয়েছে। ঘরে ঘরে মানুষ বিদ্যুৎ পেয়েছে। বিশ্ব এখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করছে। তাই বিএনপির ধ্বংস, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনাকে আবার ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনতে হবে।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মহিবুর রহমান, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শামীমা আক্তার খানম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, সদস্য আজিজুস সামাদ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হেকিমের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধক ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এনামুল কবির।

নিজেকে শেখ হাসিনার উন্নয়নকর্মী হিসেবে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘শেখ হাসিনা আমাকে রিক্রুট করেছেন। তাঁর অনুগত থেকে কাজ করছি। উন্নয়ন চাইলে, অগ্রগতি চাইলে শেখ হাসিনাকে সমর্থন ও সুরক্ষা দিতে হবে।’