এর জের ধরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ মুজিবুর রহমান হলের ফটকের সামনে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়। এ সময় স্টাম্পের আঘাতে আবদুর রবের মাথা রক্তাক্ত হয়। পরে তিনি প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে ছাত্রলীগের জ্যেষ্ঠ নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

আহত আবদুর রব বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বিগত কমিটির পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমানের অনুসারী। অন্যদিকে রিশাদ ঠাকুর ছাত্রলীগের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মিয়ার অনুসারী।

এ বিষয়ে খলিলুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, কথা-কাটাকাটির জের ধরে সামান্য হাতাহাতি হয়েছে। তবে বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়া হয়েছে। একই কথা বলেছেন ছাত্রলীগের নেতা সুমন মিয়াও।