প্রতিবেশী জামির হোসেন বলেন, আজ বিকেল পাঁচটার দিকে বাড়ির উঠানে বিদ্যুৎচালিত মেশিনে বিচালি (খড়) কাটছিলেন রুহুল আমিন। এ সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তাঁকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন বড় ভাই তৌহিদুর রহমান। এ সময় ভাইকে স্পর্শ করামাত্র তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তাঁদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বাঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ উদ্দিন বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই ভাই তৌহিদুর ও রুহুল আমিন মারা গেছেন। যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে তাঁদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন