নিহত ব্যক্তির পরিবারের বরাত দিয়ে দেবীগঞ্জ ও পৗরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র আলতাফ হোসেন বলেন, সকালে নিজের পালিত গরুর জন্য ঘাস কাটতে বের হয়েছিলেন খোকন সরকার। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ি থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে করতোয়া নদীসংলগ্ন একটি ভুট্টাখেতের পাশে তাঁকে গলাকাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। এ সময় তাঁরা চিৎকার করলে পরিবারের লোকজন সেখানে গিয়ে লাশটি খোকন সরকারের বলে নিশ্চিত করেন। খবর পেয়ে দেবীগঞ্জ থানা–পুলিশ ঘটনাস্থলে লাশটিকে ঘিরে রাখে। সেই সঙ্গে পুলিশ সিআইডির সহযোগিতা নিয়ে লাশের সুরতহালের প্রক্রিয়া শুরু করে।

দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল হোসেন বিকেলে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, লাশের পাশে খোকন সরকারের পরনের কিছু কাপড়চোপড় পড়ে ছিল। রক্তমাখা কাস্তেও পড়ে ছিল। লাশের শ্বাসনালি গভীরভাবে ক্ষত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনাটিকে হত্যাকাণ্ড মনে হচ্ছে। সিআইডির সহায়তায় লাশের সুরতহালের প্রক্রিয়া চলছে। সুরতহাল শেষে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।