‘গণিত শেখো, স্বপ্ন দেখো’ স্লোগানকে সামনে রেখে উৎসবের উদ্বোধন করেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম। উদ্বোধনী পর্বে তিনি জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির পতাকা উত্তোলন করেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের গণিত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মনির আহম্মেদ। আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন করেন নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদা আক্তার।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, অনুসন্ধিৎসু মন নিয়ে গণিত চর্চা করতে হবে। গণিত মুখস্থ করার বিষয় নয়। গণিত বিজ্ঞানের ভাষা। কেবল বিজ্ঞানের ভাষা নয়, অর্থনীতি ও ব্যবসা প্রশাসনেও গণিতের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে গণিত জানতে হবে। গণিতে যে মজা পায়, সে প্রযুক্তি শিক্ষাকে হাতের মুঠোয় আনতে পারবে।

উদ্বোধনী পর্বের পর চলছে মূল আয়োজন সোয়া এক ঘণ্টার গণিত অলিম্পিয়াড। এরপর শুরু হবে প্রশ্নোত্তর পর্ব। এতে উপস্থিত থাকবেন কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান মজুমদার, কুমিল্লা কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ এম নার্গিস আক্তার, কুমিল্লা আইডিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন লিটন, বরুড়া উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন প্রথম আলোর কুমিল্লার নিজস্ব প্রতিবেদক গাজীউল হক।

উৎসবে কুমিল্লা ও চাঁদপুর জেলার ৭২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তৃতীয় থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ৬২৪ শিক্ষার্থী ৪টি ক্যাটাগরিতে অংশ নিচ্ছে।

বিকেলে সমাপনী পর্বে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. জামাল নাছের উপস্থিত থাকবেন। অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করছেন প্রথম আলো কুমিল্লা জেলা ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধুসভার সদস্যরা।