আহত পরীক্ষার্থীদের মধ্যে চারজনের নাম পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন সুলতানা আক্তার, জান্নাতুল ফেরদৌস, মোহাম্মদ তায়েব ও আব্দুল্লাহ আল সাকিব। তাঁদের মধ্যে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সুলতানা আক্তারকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। অন্যরা কেরানীহাট ও সাতকানিয়া সদরের বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। আহত পরীক্ষার্থীরা সাতকানিয়া সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও আহত পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আজ বেলা দেড়টার দিকে উত্তর সাতকানিয়া জাফর আহমদ চৌধুরী ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষা শেষে অন্তত ১০ জন পরীক্ষার্থী যাত্রীবাহী একটি লেগুনায় কেরানীহাটের দিকে যাচ্ছিলেন। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের কেঁওচিয়ার তেমুহানী এলাকায় পৌঁছালে মালবাহী একটি ট্রাক পেছন থেকে লেগুনাটিকে ধাক্কা দেয়। এতে লেগুনাটি সড়কের পাশে উল্টে গিয়ে অন্তত ছয়জন পরীক্ষার্থী আহত হন।

আহত পরীক্ষার্থী মোহাম্মদ তায়েব প্রথম আলোকে বলেন, ‘বৃহস্পতিবার এইচএসসির রসায়ন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, ইতিহাস, উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন বিষয়ের দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা শেষে আমরা কয়েকজন পরীক্ষার্থী বাড়িতে ফেরার জন্য লেগুনায় কেরানীহাটের দিকে যাচ্ছিলাম। লেগুনাটি তেমুহানী এলাকায় পৌঁছালে পেছন দিক থেকে একটি ট্রাক লেগুনাটিকে ধাক্কা দেয়। এতে লেগুনাটি উল্টে গিয়ে আমিসহ কয়েকজন সহপাঠী আহত হয়েছি।’

দোহাজারী হাইওয়ে থানা-পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফারুক উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, ট্রাকের ধাক্কায় একটি লেগুনা উল্টে গিয়ে কয়েকজন এইচএসসি পরীক্ষার্থী হয়েছেন। আহতদের মধ্যে একজন পরীক্ষার্থীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। ট্রাক ও লেগুনাটি জব্দ করে হাইওয়ে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। গাড়ি দুটির চালকেরা পালিয়ে গেছেন।