কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী সিদ্দিকুর রহমান নয়টি সোনার বার তাঁর কোমরের বেল্টের ভেতর কৌশলে লুকিয়ে রেখেছিলেন। গোপন সূত্রে বিষয়টি জানতে পেরে আজ সকালে স্থলবন্দরে নজরদারি বাড়ানো হয়।

সকাল আটটার দিকে সিদ্দিকুর রহমান বেনাপোল স্থলবন্দরে আসেন। কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে সকাল নয়টার দিকে সিদ্দিকুর আন্তর্জাতিক শূন্যরেখায় প্রবেশ করছিলেন। এ সময় তাঁকে আটক করে তল্লাশি করলে বিশেষ পদ্ধতিতে লুকিয়ে রাখা নয়টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়।

বেনাপোল কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের সহকারী পরিচালকের মনিরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে বেনাপোল বন্দর থানায় মামলা হয়েছে। তাঁকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। উদ্ধার করা সোনা বেনাপোল শুল্ক গুদামে জমা দেওয়া হয়েছে।