বিক্ষোভরত কয়েকজন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত শনিবার দুপুরে হাসপাতাল এলাকায় স্থানীয় কয়েকজন তরুণদের সঙ্গে ইমন আহমদের কথা–কাটাকাটি হয়। পরে হাসপাতালের প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিষয়টি মীমাংসা হয়। এর জের ধরে গতকাল রাত সাড়ে নয়টার দিকে ইমন আহমদ ও রুদ্র নাথকে মেডিকেল কলেজের পেছনে পেয়ে তাঁদের ওপর হামলা চালায় ওই দুর্বৃত্তরা। পরে সহপাঠীরা খবর পেয়ে তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীদের সহপাঠীরা প্রথমে হাসপাতাল প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করেন। এরপর হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনের সড়ক অবরোধ করেন।
সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ বলেন, হামলার খবর পেয়ে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া হামলাকারীদের আটক করার চেষ্টা করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন