আলিহাট ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান বলেন, আবদুস সালাম আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত নেতা ছিলেন।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ জানায়, রোববার সন্ধ্যায় আবদুস সালাম তাঁর নাতিকে নিয়ে দোতলা বাড়ির ছাদে ওঠেন। ওই সময় ছাদের পাশে থাকা পল্লী বিদ্যুতের তারের গায়ে থাকা প্লাস্টিক আবরণ খোলা অবস্থায় ঝুলে থাকতে দেখেন।

হাত বাড়িয়ে সেটি ঠিক করতে গেলে বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হয়ে ছাদের ওপর ছিটকে পড়েন সালাম। এতে তাঁর বাঁ হাত ও বুক ঝলসে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় পরিবারের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

হাকিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সায়েম মিয়া মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর (ইউডি) মামলা হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই হস্তান্তর করা হয়েছে।