এর আগে ১৪ নভেম্বর সকালে মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপামাত্রা ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল চুয়াডাঙ্গায়।

হিমালয়ের কাছাকাছি হওয়ায় পঞ্চগড়ে প্রতিবছর শীতের আগমন ঘটে কিছুটা আগেভাবে, শীত বিদায়ও নেয় দেরিতে। বর্তমানে হেমন্তের মাঝামাঝি এই সময়টাতে সন্ধ্যা নামলেই অনুভূত হচ্ছে শীত। রাত বাড়ার সঙ্গে বাড়তে থাকে শীতের অনূভূতি। গত কয়েক দিন আগে কুয়াশার পরিমাণ বেশি থাকলেও এখন কিছুটা কমেছে কুয়াশার পরিমাণ।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, কুয়াশার পরিমাণ কমে গেলেই তাপমাত্রা কমে যায়। এখন কুয়াশা ও মেঘের পরিমাণ কম থাকায় দিন দিন তাপমাত্রা কমছে। তবে দিনের বেলা রোদ থাকায় দিন ও রাতের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার মধ্যে ব্যবধান সৃষ্টি হচ্ছে। এখন থেকে দিন দিন তেঁতুলিয়ার তাপমাত্রা কমতে থাকবে বলে তিনি জানান।