কারখানার কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কারখানার দক্ষিণ প্রান্তে অ্যামোনিয়া প্ল্যান্টের রিফর্মার পাইপলাইন ফেটে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে পড়লে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন শ্রমিকেরা। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে কারখানার নিজস্ব অগ্নিনির্বাপণকর্মী ও পাশের কাফকো সার কারখানার একটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে কারখানার উৎপাদন বন্ধ রাখতে হয়েছে।

কর্মীদের ভাষ্য, রিফর্মার পাইপলাইনটি পুরোনো হওয়ায় ফেটে গিয়ে আগুন ধরে যায়। এটি আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সংস্কার করলে এ ঘটনা ঘটত না।

কারখানার অতিরিক্ত প্রধান রসায়নবিদ প্রদীপ কুমার নাথ বলেন, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে, তবে কারখানার উৎপাদন বন্ধ রাখা হয়েছে।

১৯৮৭ সালের ২৯ অক্টোবর জাপানের কারিগরি সহায়তায় কর্ণফুলী নদীর দক্ষিণ পাড়ে আনোয়ারা উপজেলার রাঙ্গাদিয়ায় সার কারখানাটি প্রতিষ্ঠা করে সরকার। সচল থাকলে দৈনিক ১ হাজার ৪০০ মেট্রিক টন ইউরিয়া উৎপাদন হয়। বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ৫ লাখ ৬১ হাজার মেট্রিকটন ইউরিয়া এবং ৩ লাখ ১০ হাজার মেট্রিকটন অ্যামোনিয়া।