ইমিগ্রেশন পুলিশ জানায়, গত ১৮ আগস্ট বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ঝড়ের কবলে পড়েন বাংলাদেশের অনেক জেলে। সমুদ্রে ভেসে যাওয়া জেলেদের ভারতীয় জেলে ও উপকূল রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার করেন। উদ্ধার করা জেলেদের পশ্চিমবঙ্গের কাকদ্বীপের বুদ্ধপুর ও মইপিঠ এলাকার দুটি আশ্রয়কেন্দ্রে রাখা হয়।

তাঁদের মধ্যে বাংলাদেশের ২৬ জনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর ভারত ও বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে যোগাযোগের পর তাঁদের দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়। পরে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ‘ট্রাভেল পারমিটের’ মাধ্যমে আজ বিকেলে তাঁদের দেশে ফেরত আনা হয়। ফেরত আনা জেলেদের মধ্যে ২০ জন পটুয়াখালী, ৪ জন ভোলা, ১ জন বরিশাল ও ১ জন ফরিদপুর জেলার বাসিন্দা।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ প্রথম আলোকে বলেন, আড়াই মাস আগে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে বাংলাদেশের অনেক জেলে ভারতীয় সীমানায় ভেসে গিয়েছিলেন। ভারত ও বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে যোগাযোগের পর ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ‘ট্রাভেল পারমিটে’ আজ বিকেলে তাঁরা দেশে ফিরে আসেন।

আবুল কালাম আজাদ আরও বলেন, ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম শেষে তাঁদের বেনাপোল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখানে আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে তাঁদের ‘জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানের হেফাজতে দেওয়া হবে। সেখান থেকে তাঁদের নিজ নিজ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে।