ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাঈন উদ্দিন বলেন, ত্রিশালের নজরুল একাডেমি মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন চলছিল। সম্মেলন চলাকালে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে একাডেমির ডাকবাংলোর সামনের সড়কে ছুরিকাঘাতে ওই তরুণকে হত্যার ঘটনা ঘটে। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড, সেটি জানা যায়নি।

নিহত আবীরের সহযোগী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহ নগরের একটি পক্ষের সঙ্গে বিরোধ ছিল আবীরের। সেই বিরোধের জের ধরে গত বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নগরের নয়াপাড়া এলাকায় আবীরকে ধাওয়া করে ওই পক্ষ। পরে আবীর পালিয়ে যান। আজ বিকেলে আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থলে ধাওয়া করা প্রতিপক্ষের লোকজনের সঙ্গে আবীরের দেখা হয়। এ সময় গত রাতে ধাওয়া করার কারণ জানতে চান আবীর। এ নিয়ে আবীরের সঙ্গে তাঁদের কথা–কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আবীরকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় আবীরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন