স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল রাতে উপজেলার আদর্শনগর এলাকায় একটি বিয়েবাড়িতে ডেকোরেশনের কর্মী হিসেবে কাজ করছিলেন আল মামুন। সেখানে জেনারেটর থেকে আলোকসজ্জায় বৈদ্যুতিক সংযোগ দেওয়ার সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের দায়িত্বে থাকা উপসহকারী চিকিৎসা কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাশেদুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, আল মামুনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন