নিহত কিশোরের নাম রিফাত শেখ (১৪)। সে উপজেলার ময়না ইউনিয়নের গৌরীপুর গ্রামের রবিউল শেখের ছেলে। এ ঘটনায় আরেক মিস্ত্রি রিফাতের ভগ্নিপতি সিরাজুল ইসলাম (৩৫) গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনিও গৌরীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

ফ্রিজের কমপ্রেসরের ঢাকনা খোলার সময় এটি বিস্ফোরিত হয়ে ঢাকনাটি প্রায় ৩০ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে।

নিহত রিফাতের চাচা কবির হোসেন বলেন, গোহাইল বাড়ি বাজারে সিরাজুল ইসলামের পুরোনো একটি ফ্রিজের দোকান আছে। সিরাজুল পুরোনো ফ্রিজ কিনে সেগুলো মেরামত করে বিক্রি করতেন। আজ বেলা ১১টার দিকে সিরাজুল ও তাঁর শ্যালক রিফাত দোকানে কাজ করছিলেন। ফ্রিজের কমপ্রেসরের ঢাকনা খোলার সময় এটি বিস্ফোরিত হয়ে ঢাকনাটি প্রায় ৩০ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে। এ ঘটনায় রিফাত ও সিরাজুল গুরুতর আহত হন। এলাকাবাসী তাঁদের উদ্ধার করে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে হাটখোলাচর এলাকায় রিফাত মারা যায়।

বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা খালেদুর রহমান বলেন, আহত সিরাজুল ইসলামকে তাঁদের হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পরে ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবদুল ওহাব বলেন, দুর্ঘটনায় মৃত্যুর খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে অপমৃত্যু মামলা প্রক্রিয়াধীন।