পুলিশ ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, ঢাকা থেকে বাগেরহাটগামী ফাল্গুনী পরিবহনের একটি বাস সড়কের ওই এলাকায় পৌঁছালে খুলনার রূপসা থেকে ছেড়ে যাওয়া গোপালগঞ্জগামী রূপসী পরিবহনে অপর একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি বাসের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায় এবং উভয় বাসের অন্তত ১৩ যাত্রী আহত হন। তাঁদের উদ্ধার করে ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন স্থানীয় ব্যক্তিরা।

সেখানে রুবেল নামের ওই যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। নিহত রুবেল নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার উদানপাড়া এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে। তিনি বাগেরহাটের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে (এনজিও) চাকরি করতেন।

কাটাখালী হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রেজা বলেন, দুর্ঘটনার শিকার বাস দুটিকে জব্দ করেছে পুলিশ। তবে বাসের চালক ও চালকের সহকারী পালিয়ে গেছেন। পুলিশ নিহত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে। আহত ব্যক্তিদের ফকিরহাট ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।