ভূমিমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল জরিপে যাবতীয় তথ্য ডিজিটাল ও নির্ভুল হওয়ায় জরিপে স্বচ্ছতা আসবে। মামলা-মোকদ্দমা কমে আসবে, সঙ্গে জনগণের ভোগান্তিও কমে যাবে।

এ সময় ভূমিসচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. ওয়াহেদুর রহমান, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস, বিডিএস কার্যক্রমের প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল মান্নান, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক এ টি এম নাসির মিয়া, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলায় এসএ জরিপের পর আরএস জরিপ সম্পন্ন না হওয়ায় ওই দুই জেলার ১৪টি উপজেলা ডিজিটাল জরিপের জন্য বাছাই করা হয়েছে। পটুয়াখালী সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ইউনিয়ন থেকে এই জরিপ শুরু হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন