পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের কমলাপুর এলাকায় আজ সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আবু তালহা ওই এলাকার আবদুস সামাদ ও শান্ত আক্তার দম্পতির একমাত্র ছেলে। এর প্রায় আড়াই বছর আগে ওই দম্পতির ১৯ দিন বয়সী একটি মেয়ে জন্ডিসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছিল বলে জানা যায়।

মারা যাওয়া শিশুর পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে ধাক্কামারা ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য রফিকুল ইসলাম বলেন, দিনের বেশির ভাগ সময়ই দাদার সঙ্গেই সময় কাটাত শিশুটি। একমাত্র শিশুকে হারিয়ে পরিবারটি পাগলপ্রায়। গ্রামজুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

তজিবর রহমান বলেন, ‘আমার নাতিটা মাত্র হাঁটতে শিখেছিল। পুরো বাড়ি মাতিয়ে রাখত সে। কিন্তু আমার গরু নিয়ে বের হয়ে যাওয়ার পর সে যে আমার পিছু নিয়েছিল, সেটা আমি বুঝতেই পারিনি। গরু বেঁধে বাড়িতে ফিরে যখন ওকে খুঁজছিলাম তখন মনে সন্দেহ হয়েছিল সে ওই দিকে গেছে হয়তো। পরে ওই পথের ধারেই একটা ডোবার অল্প পানিতে আমার নাতিটা ভাসছিল। ওকে হারিয়ে আমাদের সব আনন্দ, সব স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল।’

পঞ্চগড় সদর থানার উপপরিদর্শক ভবেশ চন্দ্র পাল ডোবার পানিতে ডুবে শিশুটির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, মারা যাওয়া শিশুর পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।