বৈশ্বিক সমস্যার কারণে বিশ্বের প্রতিটি দেশ খাদ্যদ্রব্যসহ জ্বালানি তেলের সংকটে আছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘উন্নত বিশ্বের অধিকাংশ দেশে লোডশেডিং শুরু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় তেল উৎপাদন করলেও তাঁদের দেশেও লোডশেডিং চলছে। আমরা যেহেতু তেল উৎপাদন করতে পারি না, তাই আমাদের বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে।’ তিনি বলেন, এখন শতভাগ ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছে সরকার। রাশিয়া–ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বে এ ধরনের সমস্যা তৈরি হয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে তেল লাগে। সেই তেলের দাম ব্যাপকভাবে মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলাদেশ বিপদে পড়তে চায় না বলেই সরকার এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শীত এলে এ সমস্যা কেটে যাবে। তবে সবাইকে সচেতন ও সাশ্রয়ী হতে হবে।

প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জি এম মোহাম্মদ কবির, মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মুনছুর আলম খান, পুলিশ সুপার রাফিউল আলমসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতারা। এ সময় ফরহাদ হোসেন মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন। মেলা চলবে সাত দিনব্যাপী। সেখানে ৩০টি স্টল আছে। মেলা থেকে সাধারণ মানুষ বনজ, ফলদ ও বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা কিনতে পারবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন