শুধু মিজানুর রহমান নন, গতকাল সকাল থেকে দূরপাল্লাসহ জেলার অভ্যন্তরীণ সব পথের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ থাকায় কয়েক হাজার যাত্রী চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। আজ বেলা পৌনে ১২টার দিকে পিরোজপুর বাসস্ট্যান্ডে দূরপাল্লার বাসের কাউন্টারগুলোতে গিয়ে দেখা গেছে, সেখানে যাত্রীদের ভিড়। অনেকে বাস ধর্মঘটের খবর জানতেন না। তাবলিগ জামায়াতের একদল মুসল্লিকে দেখা গেছে বিকল্প পরিবহন খুঁজছিলেন তাঁরা। যাত্রীদের কেউ কেউ ইজিবাইক ও মোটরসাইকেলে ভেঙে ভেঙে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

পিরোজপুরের বাসিন্দা কামাল হোসেন বলেন, আজ বিকেলে অসুস্থ দাদিকে ঢাকায় চিকিৎসক দেখানোর জন্য সিরিয়াল দিয়ে রেখেছি। যথাসময়ে পৌঁছাতে না পারলে আবার কবে সিরিয়াল পাই জানি না। পিরোজপুর দোলা পরিবহনের কাউন্টারে এসে জানলাম, বাগেরহাটের শৈলদাহ থেকে ঢাকার বাস ছাড়বে। এখন অসুস্থ দাদিকে নিয়ে মোটরসাইকেলে শৈলদাহ গিয়ে বাসে উঠতে হবে। এ যে কত বড় ভোগান্তি বলে বোঝানো যাবে না।

পিরোজপুর দোলা পরিবহনের কাউন্টার ব্যবস্থাপক মো. আলমগীর বলেন, গতকাল থেকে পিরোজপুর-ঢাকার সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ আছে। আজ বিকেল থেকে বাস চালু হতে পারে। সে জন্য তাঁদের বাসগুলো বাগেরহাটের শৈলদাহতে রাখা হয়েছে। সেখানে গিয়ে যাত্রীদের বাসে উঠতে বলা হচ্ছে।

পিরোজপুর জেলা বাস-মিনিবাস-কোচ মালিক সমিতির অফিস সচিব মো. আবুল জানান, মহাসড়কে থ্রি–হুইলারসহ অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে পিরোজপুরে বাস ধর্মঘট শুরু হয়েছে। গতকাল সকাল থেকে আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে। ধর্মঘটের কারণে পিরোজপুরের অভ্যন্তরীণসহ ১২টি রুটে বাস ও মিনিবাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এদিকে দূরপাল্লার বাস চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের পিরোজপুর জেলা শাখার সভাপতি নাসিম আলী প্রথম আলোকে বলেন, একটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আরেকটি দলের রাজনৈতিক বিরোধ থাকতেই পারে। প্রতিপক্ষ দলকে কোণঠাসা করে ব্যালটের মাধ্যমে বিজয়ের নানা কৌশল হতে পারে। তাই বলে একটি দলের সমাবেশকে কেন্দ্র করে বাস, লঞ্চ ধর্মঘট ডেকে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তি দেওয়া কাম্য নয়। এটা রাজনৈতিক শিষ্টাচার পরিপন্থী।

পিরোজপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আলমগীর হোসেন বলেন, ‘বরিশালে বিএনপির মহাসমাবেশে আমাদের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষ যাতে যোগদান করতে না পারে সে জন্য বাস ধর্মঘট ডাকা হয়েছে। বিএনপির মহাসমাবেশের আগে এর আগেও বাস ধর্মঘট ডাকা হয়েছিল। আমরা এটা বুঝতে পেরে দুই দিন আগেই নেতা-কর্মীদের নিয়ে নৌপথে ও নানাভাবে বরিশাল পৌঁছেছি।’