সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক চন্দ্র সাহা এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে সাভারের সিঅ্যান্ডবি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাস থেকে নামার পর আবু বকর সিদ্দিক হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় চার থেকে পাঁচজন তাঁর পথ রোধ করে। এরপর তাঁকে ছুরিকাঘাত করে তাঁর কাছ থেকে টাকাপয়সা ও মুঠোফোন নিয়ে নেয়। দুর্বৃত্তরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানাপ্রাচীরের দেয়াল টপকে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় কয়েকজন তাঁকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক উজ্জ্বল হোসেন বলেন, ওই ব্যক্তির শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত ছিল। তাঁকে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাঁর বুক, পেট ও হাতে পাঁচটি জখম পাওয়া গেছে। তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি অনেকটা শঙ্কামুক্ত।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক আবদুর রহিম বলেন, ওই ব্যক্তি (এসি ল্যান্ড) সাভারের দিক থেকে আসা গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় পাঁচজন তাঁকে ঘিরে ধরে। তাঁকে ছুরিকাঘাত করে তাঁর কাছে থাকা মুঠোফোন ও টাকাপয়সা নিয়ে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। দুর্বৃত্তদের বয়স ১৭ থেকে ২০ বছরের মধ্যে।

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শংকর চন্দ্র বৈদ্য বলেন, এসি ল্যান্ড আবু বকর সিদ্দিক ছিনতাইয়ের শিকার হয়ে আহত হওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। গত অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে তিনি সাভারে সার্ভে অ্যান্ড সেটেলমেন্ট বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।