চুয়াডাঙ্গা জেলার মানচিত্র

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান (২২) খুনের ঘটনায় মাসুদ রানা (২৫) নামের এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাতে আলমডাঙ্গা থানার পুলিশের একটি দল পৌর এলাকা থেকে তাঁকে আটক করে।

পুলিশের দাবি, গতকাল স্বেচ্ছাসেবক লীগের যে দুজন নেতা আল-ইমরানকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছেন, তাঁদের একজন এই মাসুদ রানা। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার কুমারী ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামের বাসিন্দা ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য।

আরও পড়ুন

আলমডাঙ্গায় পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা

এদিকে চাঞ্চল্যকর এ খুনের ঘটনায় আজ শনিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি। আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আল-ইমরান খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের একজনকে ইতিমধ্যে আটক করা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে। নিহত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

গতকাল বেলা ১১টার দিকে আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার গোবিন্দপুর মাঠপাড়ায় দুর্বৃত্তরা আল-ইমরানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর সাড়ে ১২টায় তিনি মারা যান। সন্ধ্যায় লাশ এলাকায় পৌঁছালে দলীয় নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। আল-ইমরানের খুনিদের গ্রেপ্তারের জন‍্য সমাবেশ থেকে ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেওয়া হয়। রাত ৯টার দিকে স্থানীয় কবরস্থানে জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়। এতে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাবেক মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জানিফ হোসেন, দলীয় নেতা-কর্মী, জনপ্রতিনিধিসহ এলাকাবাসী অংশ নেন।