ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) পাওয়া ওই তিন নেতা হলেন জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি বারী তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মঈন ও সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া ইমতিয়াজ।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে, ওই তিন নেতার বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে উঠেছে। এ অভিযোগের ব্যাপারে তাঁদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, সে মর্মে সাত দিনের মধ্যে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে লিখিত জবাব দিতে তাঁদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইখতেখার মাহমুদ বলেন, ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে ওই নেতারা অংশ না নিয়ে আলাদা কর্মসূচি পালন করেন। বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতারা জানার পর তাঁদের শোকজ করেন।

পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া ইমতিয়াজ বলেন, ‘জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে না বসে আলাদা কার্যালয়ে বসেন। আমাদের সঙ্গে তাঁদের দূরত্ব তৈরি হয়েছে। এ জন্য আমরা প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আলাদাভাবে পালন করি।’