এর আগে ১৬ জুলাই একই উপজেলায় আরও এক কিশোরীকে অপহরণ করে সাত দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত তরুণ নাজিম উদ্দিনকে (২২) পুলিশ গ্রেপ্তার করে আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।

গতকাল রাতে মামলার এজাহারে ওই কিশোরীর মা অভিযোগ করেন, ৯ জুলাই তিনি তাঁর কিশোরী মেয়েকে বাড়িতে রেখে ফেনীতে বাবার বাড়ি বেড়াতে যান। এই সুযোগে সদর উপজেলার আজগর হোসেন তাঁর মেয়েকে বাড়ি থেকে জোর করে তুলে নিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণ করেন।

এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন, অভিযুক্ত আজগরের অটোরিকশায় বিভিন্ন সময় তিনি বাবার বাড়িতে আসা-যাওয়া করেছেন। মেয়েকে বাড়িতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে গতকাল বিকেলে জানতে পারেন, আজগর লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার এলাকায় তাঁর মেয়েকে ফেলে পালিয়ে গেছেন। পরে তাঁরা সেখান থেকে মেয়েকে উদ্ধার করেন।

চর জব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেবপ্রিয় দাস প্রথম আলোকে বলেন, বাদীর অভিযোগটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে নিয়মিত মামলা হিসেবে রুজু করা হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন