বর সালমান শাহর বাড়ি নেত্রকোনার মদন পৌরসভার দক্ষিণপাড়া এলাকায়। তিনি ওই এলাকার মৃত ছদরুল ইসলাম তালুকদারের ছেলে। আজ সন্ধ্যার পর সালমান শাহর সঙ্গে মদন উপজেলার বালালী গ্রামের মৃত আবদুল গনির মেয়ে মুক্তামনির (১৯) বিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

হাতি নিয়ে বরযাত্রার খবর শুনে প্রায় ১০ কিলোমিটারের যাত্রাপথে ভিড় জমান উৎসুক লোকজন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বর-কনে উভয়ই ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। সম্প্রতি চাকরি ছেড়ে বাড়িতে চলে আসেন। সালমান শাহর নানি জবেদা আক্তারের ইচ্ছা ছিল, নাতবউকে বাড়ি আনবেন হাতির পিঠে করে। নানির সেই ইচ্ছা পূরণ করতে ২০ হাজার টাকায় হাতি ভাড়া নিয়ে বউ আনতে গেছেন সালমান শাহ। হাতি নিয়ে বরযাত্রার খবর শুনে প্রায় ১০ কিলোমিটারের যাত্রাপথে ভিড় জমান উৎসুক লোকজন।

কনের বাড়ি থেকে বরের চাচা বীর মুক্তিযোদ্ধা তাজুল ইসলাম তালুকদার মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার ভাতিজা তাঁর নানির ইচ্ছা পূরণ করতে হাতি নিয়ে বিয়ে করতে এসেছে। আর আমরা সবাই গাড়ি নিয়ে কনের বাড়িতে এসেছি।’

সালমানের নানি জবেদা আক্তার বলেন, ‘আমার তিন মেয়ে, কিন্তু কারও কোনো ছেলেসন্তান ছিল না। একমাত্র নাতি সালমান শাহ জন্ম হওয়ার সময় তাঁকে কোলে নিয়ে বলেছিলাম, বড় হলে হাতির পিঠে চড়িয়ে নাতির জন্য বউ আনব। আমার মনের আশা পূরণ হয়েছে। আমি খুব খুশি।’

বর সালমান শাহ সন্ধ্যার দিকে মুঠোফোনে বলেন, ‘আমার নানির ইচ্ছা পূরণ করতে গিয়ে আমি হাতি নিয়ে বিয়ে করতে এসেছি। এ অন্য রকম এক অনুভূতি। হাতির পিঠে বরযাত্রা দেখতে রাস্তায় অনেক মানুষ ভিড় জমিয়েছিলেন।’ তিনি জানান, রাতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে হাতির পিঠে চড়িয়েই নববধূকে বাড়ি আনবেন।