কমিটি ঘোষণার সময় যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ, সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খানসহ জেলা যুবলীগের ২৭৪ জন কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন।

নতুন কমিটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে ১৬ বছর পর নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পেল জেলা যুবলীগ। নবনির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে আগামী এক মাসের মধ্যে ১০১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে বলা হয়েছে। নতুন কমিটি ২০২৪ সালের নির্বাচন ও বিরোধী দলের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে ভূমিকা রাখবেন বলে নেতা-কর্মীরা জানান।

সর্বশেষ ২০০৬ সালে জেলা যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তখন খান মুজিবুর রহমানকে সভাপতি ও শামীম আহমেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হয়। ২০১২ সালে ওই কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়।

এর চার বছর পর সরদার নাসির উদ্দিনকে আহ্বায়ক করে ২৪ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই আহ্ববায়ক কমিটি গঠনের ছয় বছর পর সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হলো।