এর আগে গত বৃহস্পতিবার চুয়াডাঙ্গার ছয় বিজিবির সদস্যরা দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের নাস্তিপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ কেজি ৮৬০ গ্রাম সোনার বারসহ একজনকে আটক করেছিলেন।

সদর থানা–পুলিশ জানায়, ফরিদপুর জেলা থেকে প্রাইভেট কার যোগে সোনার বারের একটি চালান চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারের জন্য আনা হচ্ছিল। সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে শহরের ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি প্রাইভেট কারসহ (ঢাকা মেট্রো গ ২১-৭২৯৮) দুজনকে আটক করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সুপার মো. আবদুল্লাহ আল-মামুন ও সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিসুজ্জামান এবং সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাব্বুর রহমান ঘটনাস্থলে আসেন। এ সময় প্রাইভেট কারের ভেতর তল্লাশি চালিয়ে সোনার বারগুলো উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার মো. আবদুল্লাহ আল মামুন প্রথম আলোকে বলেন, সোনার বারসহ দুই পাচারকারী আটকের বিষয়ে সদর থানায় মামলা করা হবে।