রেলওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আজ সকাল পৌনে আটটার দিকে সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনটি আমিরগঞ্জ রেলস্টেশনে প্রবেশ করছিল। এ সময় রুহুল আমিন নামের ওই তরুণ রেললাইন ধরে হাঁটছিলেন। ট্রেনটির ধাক্কায় তিনি রেললাইনের পাশে ছিটকে পড়েন। এতে ঘটনাস্থলে তাঁর মৃত্যু হয়। স্থানীয় লোকজন ঘটনাটি নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে জানালে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সহকারী উপপরিদর্শক ইকবাল হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করেন। পরে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর লাশ ফাঁড়িতে নেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে রুহুল আমিনের স্বজনেরা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে এসেছেন।

এদিকে দুর্ঘটনার সময় রুহুল আমিনকে বাঁচাতে গিয়ে দ্রুত ব্রেক করায় ট্রেনটির হুইসেল পাইপ ছুটে যায়। এ সময় কিছু দূরে ট্রেনটি থেমে যায়। পরে ৩০ মিনিট থেমে থাকার পর রেলওয়ে কর্মীদের চেষ্টায় ট্রেনটি আবার যাত্রা শুরু করে।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক ইকবাল হোসেন বলেন, ‘নিহত রুহুল আমিনের প্যান্টের পকেটে থাকা মুঠোফোন ও এনআইডি কার্ড সূত্রে আমরা তাঁর পরিচয় নিশ্চিত হয়েছি। ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।’