গত রোববার বিকেলে মাধবপুর উপজেলার জগদীশপুর এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অজ্ঞাতপরিচয় এক তরুণীর প্রসববেদনা ওঠে। তখন আশপাশে অবস্থান করছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব জাকিয়া পারভীন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক বদিউজ্জামান, আসিফ ইকবালসহ কয়েকজন চিকিৎসক। তাঁরা সেখানে গিয়ে মহাসড়কে কাপড় টানিয়ে ওই তরুণীর ছেলেসন্তান প্রসব করান।

মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এ এইচ এম ইশতিয়াক আল মামুন আজ মঙ্গলবার প্রথম আলোকে বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই তরুণী ও নবজাতককে গতকাল হবিগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ মো. হাসানুল ইসলামের আদালতে হাজির করা হয়। আদালত শিশুটিকে ছোটমনি নিবাসে নেওয়ার আদেশ দেন। সেই অনুয়ায়ী রাত ১২টায় পুলিশের সহযোগিতায় একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে শিশুটিকে সিলেটের বাগবাড়ি এলাকায় সরকারি ছোটমনি নিবাসে পাঠানো হয়। ওই তরুণী সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। শিশুটিও সুস্থ আছে।

মেয়েটির পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি বলে জানিয়েছেন মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আবদুর রাজ্জাক।